বরিশালে সহকর্মীকে মারধর করা সেই শিক্ষিকা বরখাস্ত
বাংলাদেশ, ২৫শে জানুয়ারি, ২০২০ ইং। সর্বশেষ আপডেট: ২ ঘন্টা আগে
  টানা শৈত্যপ্রবাহে কুড়িগ্রামের জনজীবন বিপর্যস্ত  ফুলবাড়ীতে নিজ ঘরে ৭ম শ্রেণির ছাত্রের লাশ উদ্ধার!  শীতার্তদের মধ্যে কম্বল বিতরণ!  আত্মসমর্পণ করতে যাচ্ছে অর্ধশতাধিক ইয়াবা ব্যবসায়ী  পটুয়াখালী বিশ্ববিদ্যালয়ে র‌্যাগিং : ১৫ শিক্ষার্থী বহিষ্কার  মুরাদনগরে চাপিতলা অজিফা খাতুন উচ্চ বিদ্যালয়ের অভিষেক অনুষ্ঠান  বানারীপাড়ায় পরিত্যক্ত বাড়িতে কলেজ ছাত্রীর ঝুলন্ত লাশ  মাটিতে পুঁতে রাখা কলেজছাত্রের লাশ উদ্ধার  ঘরে অগ্নিকাণ্ড, আটকা পড়ে ভাই-বোনের মৃত্যু  কলাপাড়ায় স্কুলের পুকুরে শিশু শিক্ষার্থীর মৃত্যু  “আর সহ্য করতে পারছি না, প্রাণটা পালাই পালাই করছে…”  ফের ৩ বাংলাদেশিকে গুলি করে মারল বিএসএফ  বরগুনায় মাহফিল থেকে ফেরার পথে তরুণীকে গণধর্ষণ  চরম সংকটে জীবন কাটছে কুড়িগ্রামের জেলে-মাঝিদের  উজিরপুরে মহিলা মেম্বর কে হত্যার চেষ্টা!  উজিরপুরে জমি বিরোধের জের ধরে সহোদরকে কুপিয়ে জখম    কলাপাড়ায় নববধূকে মাটিচাপা দিয়ে হত্যা করলো স্বামী !  হারপিক খেয়ে এমপিপুত্রের আত্মহত্যার চেষ্টা  সীমান্তে ২ বাংলাদেশিকে হত্যা করল বিএসএফ

বরিশালে সহকর্মীকে মারধর করা সেই শিক্ষিকা বরখাস্ত

Avatar

একুশের চোখ

নিজস্ব প্রতিবেদক

প্রকাশিতঃ ডিসেম্বর ১১, ২০১৯ ৬:১৩ অপরাহ্ণ

বরিশালের মুলাদী উপজেলায় বিদ্যালয় চলাকালে শিক্ষার্থীদের সামনে সহকর্মীকে মারধর করে আহত করার ঘটনায় অভিযুক্ত সহকারী শিক্ষক মিনারা আক্তার লিপিকে সাময়িক বরখাস্ত করা হয়েছে। মঙ্গলবার জেলা প্রাথমিক শিক্ষা কর্মকর্তা আব্দুল লতিফ মুজমদার স্বাক্ষরিত এক আদেশে তাকে সাময়িক বরখাস্ত করা হয়।

পাশাপাশি তার বিরুদ্ধে বিভাগীয় মামলা করার প্রক্রিয়া চলছে বলে উপজেলা শিক্ষা কর্মকর্তার কার্যালয় সূত্রে জানা গেছে।

অভিযুক্ত মিনারা আক্তার লিপি উপজেলার কাজিরচর ইউনিয়নের ৯৩ নম্বর চরকমিশনার সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের সহকারী শিক্ষক।

জানা গেছে, গত শনিবার (৭ ডিসেম্বর) চরকমিশনার সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের সহকারী শিক্ষক খুরশিদা আক্তার হ্যাপিকে সমাপনী পরীক্ষা চলাকালে শিক্ষার্থীদের সামনে প্রকাশ্যে মারধর করেন সহকারী শিক্ষক মিনারা আক্তার লিপি।

বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক মো. ছিদ্দিকুর রহমান জানান, শনিবার বার্ষিক পরীক্ষা শেষ হওয়ার আগ মুহূর্তে সহকারী শিক্ষক মিনারা আক্তার লিপি পরীক্ষার হলে প্রবেশ করে খুরশিদা আক্তার হ্যাপিকে বের হতে বলেন। হ্যাপি পরীক্ষা শেষ করে খাতাপত্র নিয়ে বের হবেন বলে জানালে লিপি ক্ষিপ্ত হয়ে তাকে মারধর শুরু করেন। একপর্যায়ে লিপি কিল-ঘুষি দিয়ে ও দেয়ালে মাথা ঠুকে হ্যাপিকে মারাত্মক আহত করেন। পরে হ্যাপি মাটিতে লুটিয়ে পড়লে লিপি বীরদর্পে বের হয়ে চলে যান। শিক্ষার্থীরা বিষয়টি প্রধান শিক্ষককে অবহিত করলে তাকে উদ্ধার করে মুলাদী হাসপাতালে ভর্তি করা হয়।

তিনি আরও জানান, এ ঘটনায় বুধবার সকালে মিনারা আক্তার লিপিকে সাময়িক বরখাস্তের আদেশ পেয়েছি। অভিযুক্ত শিক্ষককে বিষয়টি জানানো হয়েছে।

মুলাদী উপজেলা শিক্ষা কর্মকর্তা রফিকুল ইসলাম জানান, সহকারী শিক্ষক মিনারা আক্তার লিপির বিরুদ্ধে একই বিদ্যালয়ের সহকারী শিক্ষক খুরশিদা আক্তার হ্যাপি লিখিত অভিযোগ দিয়ে ছিলেন। দুই সদস্যবিশিষ্ট তদন্ত কমিটি অভিযোগটি খতিয়ে দেখে। তদন্তে মিনারা আক্তার লিপির বিরুদ্ধে অভিযোগ প্রমাণিত হওয়ায় জেলা প্রাথমিক শিক্ষা কর্মকর্তা আব্দুল লতিফ মুজমদার এক আদেশে তাকে সাময়িক বরখাস্ত করেন। পাশাপাশি তার বিরুদ্ধে বিভাগীয় মামলা করার প্রক্রিয়া চলছে বলে জানান তিনি।

প্রসঙ্গত, সম্প্রতি সহকারী শিক্ষক খুরশিদা আক্তার হ্যাপিকে মারধরের ঘটনার ভিডিও ও স্থিরচিত্র ফেসবুকসহ বিভিন্ন সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ভাইরাল হয়। বিষয়টি নিয়ে সমালোচনার সৃষ্টি হয়।

এ বিষয়ে মিনারা আক্তার লিপির ঘনিষ্ঠজনরা জানান, সহকারী শিক্ষক খুরশিদা আক্তার হ্যাপি শিক্ষার্থীদের পাঠদানে পারদর্শী নন বলে অভিযোগ রয়েছে। শিক্ষার্থীদের পাঠদানের বিষয়ে তিনি খুব একটা মনোযোগীও নন। এনিয়ে বিভিন্ন সময় হ্যাপির বিরুদ্ধে মন্তব্য করেন লিপি। ফলে তাদের মধ্যে দ্বন্দ্ব দেখা দেয়। ঘটনার দিন হ্যাপি বিদ্যালয়ের কয়েকজন শিক্ষকের কাছে লিপির নামে কটূক্তি করেন। এতে ক্ষিপ্ত হয়ে লিপি তাকে মারধর করেন।

আর্কাইভ

আর্কাইভ
প্রধান উপদেষ্টা: এম লোকমান হোসাঈন
উপদেষ্টামন্ডলী: মোঃ শাহাব উদ্দিন বাচ্চু, হাবিবা আক্তার মনি
আইন উপদেষ্টা:
প্রকাশক ও সম্পাদক: কাওসার মাহমুদ (মুন্না)
ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক: খাঁন আব্বাস
নির্বাহী সম্পাদক: রাশেদ খান (সুমন)
যুগ্ন নির্বাহী সম্পাদক: সোহানুর রহমান
ব্যবস্থাপনা সম্পাদক: কবির হোসেন
যুগ্ন ব্যবস্থাপনা সম্পাদক:
বার্তা সম্পাদক: মেহেদী হাসান
যুগ্ম বার্তা সম্পাদক:
স্থায়ী কার্যালয়: রহমতপুর বাজার, বাবুগঞ্জ বরিশাল।
অস্থায়ী কার্যালয়: ভূঁইয়া ভবন, ফকির বাড়ি রোড ,বরিশাল। মুঠোফোন: 01812159112, [email protected]

এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার সম্পূর্ণ বেআইনি এবং শাস্তিযোগ্য
Developed by: NEXTZEN LIMITED